June 24, 2018
  • পরীমনিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে
  • কিমের সঙ্গে চুক্তির পরও নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াল ট্রাম্প
  • সরকারের প্রতি ভোটারদের আস্থা নেই, প্রধানমন্ত্রী ঠিকই উপলব্ধি করেছেন: রিজভী আহমেদ
  • গাজীপুরের নির্বাচন হবে এসিড টেস্ট: মওদুদ
  • ইথিওপিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশে গ্রেনেড হামলা, ব্যাপক হতাহত
  • ছাড় পাচ্ছে না মেসি পূত্র চিরো!
  • ‘অক্টোবরের শেষ দিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল’
  • ভারতীয় নাগরিক রোখসানার স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ
  • ব্যাংক পরিচালকেরা চাপে
  • ইসরাইলি গুলিতে রক্তে ভেসে যায় প্রেস লেখা নীল জ্যাকেট

কক্ষপথের নিজস্ব অবস্থানে পৌঁছেছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১


বার্তা৭১ ডটকমঃ বাংলাদেশের প্রথম যোগাযোগ উপগ্রহ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ ফ্লোরিডা থেকে উৎক্ষেপণের ১০ দিন পর কক্ষপথে তার নিজস্ব অবস্থানে(অরবিট স্লট) পৌঁছেছে।

সোমবার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের(বিসিএসসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আমাদের স্যাটেলাইট তার অবস্থান নিয়েছে এবং স্বাভাবিকভাবেই কাজ শুরু করেছে। এখন বাণিজ্যিকভাবে কার্যক্রম শুরু করার আগে আরো বেশকিছু পরীক্ষা চালানো হবে। আগামী ৩ মাসের মধ্যে আমরা বাণিজ্যিক অপারেশনে যাব।

গত ১১ মে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ সফলভাবে উৎক্ষেপণ করা হয়। স্পেসএক্সের সর্বাধুনিক রকেট ফ্যালকন-৯ এর মাধ্যমে স্যাটেলাইটটি ১১৯.১ দ্রাঘিমাংশে পাঠাতে উৎক্ষেপণ করা হয়।

সরকারি সূত্র জানায়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ প্রতি ২৪ ঘন্টায় একবার ৩৬ হাজার কিলোমিটার উচ্চতায় একবার পৃথিবী পরিক্রমণ করবে।

ফ্যালকন-৯ এর ব্লক-৫ থেকে উৎক্ষেপণের পরপরই স্যাটেলাইটটি ৩৫ হাজার ৭০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেয়। পরের ১০ দিনে আরো ৩০০ কিলোমিটার অতিক্রম করে বর্তমান অবস্থানে পৌঁছেছে।

এর আগে গাজীপুর গ্রাউন্ড স্টেশনের অপারেশন ইঞ্জিনিয়ার তাজুল ইসলাম জানান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ গ্রাউন্ড স্টেশনে সংকেত পাঠাতে শুরু করেছে।

গাজীপুরের জয়দেবপুর ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ার গ্রাউন্ড স্টেশন থেকে স্যাটেলাইটটির পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ পেতে প্রায় ২ মাস সময় লাগবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বাংলাদেশ সরকারের চুক্তি অনুযায়ী, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান থ্যালেস এলেনিয়া স্পেস প্রথম তিন বছর বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে স্যাটেলাইটটি পর্যবেক্ষণের কাজ করবে। এরমধ্যে সক্ষমতা তৈরি হয়ে গেলে পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব বাংলাদেশের ওপর ছেড়ে দেবে ফরাসি কোম্পানিটি।

বিভাগ - : তথ্য ও প্রযুক্তি

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন