September 16, 2019
  • বড় ঘটনা ঘটানোর জন্য এটা ‘টেস্ট কেস’ হতে পারে : কাদের
  • যুবলীগ নেতা হত্যার প্রধান আসামি ‌‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
  • পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা
  • একদিনের নবজাতকের মরদেহ টেনে আনল কুকুর
  • পুলিশের ওপর বোমা হামলার দাবি আইএসের
  • মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী
  • চলমান মামলা নিয়ে গণমাধ্যমে রিপোর্টে বাধা নেই: আইনমন্ত্রী
  • বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে দেশের সব বেসরকারি টিভি
  • কালশী থেকে বাউনিয়া খাল পর্যন্ত পাইপ ড্রেন
  • ঝড়ে বায়তুল মোকাররমে দুর্ঘটনায় তদন্ত কমিটি

রাজধানীতে গারো মা-মেয়েসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যা


বার্তা৭১ ডটকমঃ রাজধানীতে গত রাতে পৃথক ঘটনায় গুলশান ও ফার্মগেট এলাকায় দুই গারো মা-মেয়েসহ তিনজন খুন হয়েছেন।
এর মধ্যে গুলশানের কালাচাঁদপুরে নিজ ফ্ল্যাটে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে মা-মেয়েকে। নিহতের মধ্যে মায়ের নাম সুজাতা চিরিং (৫০) বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছে। তার সাথে খুন হয়েছেন মেয়ে (২৫)। তবে রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ তার নাম জানাতে পারেনি। অপর দিকে ফার্মগেটে ভারসাম্যহীন এক ভবঘুরের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন জুলহাস মিয়া (৫৫) নামে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের এক ম্যানেজার।

পুলিশ জানায়, গত রাতে কালাচাঁদপুরের শিশু মালঞ্চ স্কুলের গলিতে একটি চার তলা ভবনের চতুর্থ তলার ফ্যাটে সুজাতা চিরিং ও তার মেয়ে খুন হন। ওই বাড়ির বাসিন্দাদের মাধ্যমে খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৯টায় পুলিশ সেখানে যায়। তারা সুজাতা ও মেয়ের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে। মা-মেয়ের গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

গুলশান থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সালাউদ্দিন জানান, মেয়ে ও অন্যদের নিয়ে সুজাতা ওই বাসায় থাকতেন। তবে ঘটনার সময় মা-মেয়ে ছাড়া কেউ ছিলেন না ওই ঘরে। কিভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে সে বিষয়ে ওই বাড়ির কেউ কিছু এখনো পরিষ্কার কিছু বলতে পারেনি। সুজাতা ও তার মেয়ের গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা। এ হত্যাকাণ্ডের পেছনে পারিবারিক দ্বন্দ্ব থাকতে পারে বলে ধারাণা করা হচ্ছে।

এ দিকে গতকাল বিকালের দিকে ফার্মগেটের ইন্দিরা রোড এলাকায় দোকানের মধ্যে ছুরিকাঘাতে নিহত হন জুলহাস মিয়া। শেরেবাংলা নগর থানার এসআই মো: মনিরুজ্জামান জানান, ফার্মগেটের ইন্দিরা রোডে একটি সিমেন্টের দোকান দেখাশোনা করতেন জুলহাস। বিকালে এক ভবঘুরে এসে দোকানে ঢুকে টাকা চায়। টাকা না দেয়ায় ওই ভবঘুরে তাকে ছুরিকাঘাত করে। গুরুতর আহত জুলহাসকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক সন্ধ্যায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হামলাকারী একজন মানসিকভারসাম্যহীন বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা। তাকে আটক করা হয়েছে।

নিহত জুলহাস মিয়ার ছেলে মো: সাইফুল ইসলাম জানান, দোকানটির মালিকের নাম মাসুদ রাজা। তার বাসার নিচেই দোকানটি। ওই বাসাতেই থাকতেন তিনি। তাদের বাড়ি কুমিল্লার হোমনা উপজেলায়।

বিভাগ - : আইন ও অপরাধ, আঞ্চলিক সংবাদ

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন