October 16, 2018
  • গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে সবকিছু করবে ইসি
  • অভিযানের প্রস্তুতি সম্পন্ন, এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি
  • জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার রায় ২৯ অক্টোবর
  • প্রধানমন্ত্রী সৌদি আরব সফরে যাচ্ছেন আজ
  • ইসিকে গণসংহতি আন্দোলনের আইনি নোটিশ
  • লিটন-সাকিবের বিদায়ে চাপে বাংলাদেশ
  • বাংলাদেশে ঢোকার অপেক্ষায় আরও ৫ লাখ রোহিঙ্গা
  • মা হলেন অভিনেত্রী শায়লা সাবি
  • ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি
  • আইসিসি নিজেই মিয়ানমারের বিচারে সক্ষম: জাতিসংঘ মহাসচিব

সাবেক একনায়ককে বিশ্বাস করা সহজ নয়: আনোয়ার ইব্রাহীমের মেয়ে


বার্তা৭১ ডটকমঃ মালয়েশিয়ার কারাদ-প্রাপ্ত রাজনৈতিক নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম অতি শিগগিরই মুক্তি পাবেন বলে ধারণা করছেন তার মেয়ে নুরুল ইজাহ আনোয়ার। তবে তিনি এ-ও বলেছেন যে, সাবেক একনায়ককে বিশ্বাস করা খুব একটা সহজ নয়।

এবিসি নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নুরুল ইজাহ আনোয়ার বলেন, তিনি শিগগিরই মুক্তি পাবেন, কারণ নির্বাচনের এ ফলের পেছনে, নতুন এই পদক্ষেপের পেছনে তিনি ছিলেন অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শক্তি। কারাগারে পিতার সাথে সাক্ষাৎ করে আসার পর সাক্ষাৎকার দেন দেশটির পার্লামেন্ট সদস্য নুরুল ইজাহ আনোয়ার।

সদ্য শপথ নেয়া প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ জানিয়েছেন, দেশটির সুলতান আনোয়ার ইব্রাহিমকে মুক্তি দেয়ার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছেন। ফলে ধারণা করা যাচ্ছে, পূর্ণ শাস্তি ভোগ করার আগেই তিনি মুক্তি পেতে যাচ্ছেন। এটি বাস্তবায়ন হলে শিগগিরই তিনি পার্লামেন্টে প্রবেশ করতে পারবেন এবং মাহাথিরের হাত থেকে সরকারের দায়িত্ব নিতে পারবেন।

আনোয়ার ইব্রাহিমকে কথিত সমকামিতার অভিযোগে ইতোমধ্যে দুইবার কারাদ- দেয়া হয়। প্রথম দফায় মাহাথির ক্ষমতায় থাকাবস্থাতেই তিনি শাস্তি পান। দ্বিতীয় দফায় যখন তিনি কারাদ- পান, তখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন নাজিব রাজাক। যদিও আনোয়ারের সমর্থকেরা অভিযোগগুলো রাজনৈতিক কারণে করা হয়েছে বলে অভিহিত করেন।
নুরুল ইজাহ আনোয়ার বলেন, ডা: মাহাথির মোহাম্মদ আজ (গতকাল) এক বক্তব্যে বলেন, সুলতান এ বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন। আমরা চাই, তার বিরুদ্ধে আনা অন্য রাজনৈতিক অভিযোগগুলোও বাতিল করা হবে। সেই সাথে অন্যায়ভাবে আটক থাকা অন্য রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দেরও আমরা মুক্তি চাই। তাদের সম্মতি এই কথাই প্রমাণ করে যে, তিনি ছিলেন একজন নির্দোষ ব্যক্তি; কিন্তু তিনি এ অভিযোগে মোট ১১ বছর কারাদ- ভোগ করেন।

আনোয়ার ইব্রাহিমের কাছে ক্ষমতা হস্তগত করার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি এই জোট টিকে আছে কেবল বিশ্বাসের ওপর। যদিও সাবেক একনায়ককে বিশ্বাস করা সহজ নয়, কিন্তু সংস্কারের বিষয়ে তিনি প্রতিশ্র“তি দিয়েছেন। আর এখানে সেগুলো নিশ্চিত করার জন্য তো রয়েছিই। তিনি বলেন, কে প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন, আমি এ ব্যাপারে উদ্বিগ্ন নই। আমি সব সময়ই বলে এসেছি, আমাদের একজন ভালো প্রধানমন্ত্রী দরকার।

বিভাগ - : আন্তর্জাতিক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন