November 22, 2017
  • ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব স্বীকৃতি: নাগরিক সমাবেশ শনিবার
  • ২০১৮ সালে সরকারি ছুটি ২২ দিন
  • শাবি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের সংঘর্ষ
  • শ্যাননের সঙ্গে খালেদা জিয়ার ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে : মির্জা আলমগীর
  • শিল্প ও বাণিজ্য মেলা নামে র‌্যাফেল ড্র নামক জুয়ার রমরমা ব্যবসা
  • প্রধান বিচারপতির ভূমিকা দুঃখজনক : আমু
  • ঈদুল আজহা ২ সেপ্টেম্বর
  • রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু বৃহস্পতিবার
  • বিষধর সাপ নিয়ে খেলছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের
  • ‘নির্বাহী ও বিচার বিভাগে দূরত্ব সৃষ্টির চক্রান্তে বিএন‌পি’

৬ মার্চ ‘জাতীয় পাট দিবস’

image-8924
বার্তা৭১ ডটকমঃ
বাংলাদেশকে আবারও সোনালি আঁশের দেশ হিসেবে রূপান্তর করে পাটের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে আগামী ৬ মার্চ প্রথমবারের মতো পালিত হতে যাচ্ছে ‘জাতীয় পাট দিবস’। বিদেশে বাংলাদেশের বিভিন্ন কূটনৈতিক মিশনসহ সারাদেশে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে মহাসমারোহে দিনটিকে উদ্যাপন করতে যাচ্ছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে আয়োজিত ‘জাতীয় পাট দিবস’ উদ্যাপনের প্রস্তুতিমূলক সভায় এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ কাদের সরকার, পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোছলেহ উদ্দিন, বিজেএমসির চেয়ারম্যান ড. মাহমুদুল হাসান, বিটিএমসির চেয়ারম্যান বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. বায়জিদ সারোয়ার, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এ বছরের ৬ মার্চ ‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০’ এর সফল বাস্তবায়ন উদ্যাপন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনটিকে ‘জাতীয় পাট দিবস’ ঘোষণা করেন।

সভায় জানানো হয়, বর্ণাঢ্য এ দিবসের আয়োজনে ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা, বিভাগীয় শহর থেকে পাট চাষিসহ পাটের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে এর সাথে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। র‌্যালি, ব্যানার, পোস্টারসহ পাট চাষ সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোতে বিশেষ আয়োজন থাকবে। পাট মিল এলাকাগুলোতে আলোকসজ্জাসহ তোরণ নির্মাণ করা হবে। রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হবে বিশেষ আর্কষণীয় র‌্যালি এছাড়াও বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে তিন দিনব্যাপী পাটজাত পণ্যের মেলা।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন গণতান্ত্রিক সরকার তার অভীষ্ট লক্ষ্যে দীপ্ত পদে অগ্রসরমান। পাটশিল্পে সরকারের সুদক্ষ নেতৃত্বে ও পরিচালনায় নতুন প্রাণের সঞ্চার করেছে। পাট শিল্পের এ অগ্রযাত্রাকে ধরে রাখতে বর্তমান সরকার দেশের অভ্যন্তরে ৬টি পণ্য যথা ধান, গম, চাল, ভুট্টা, চিনি এবং সার মোড়কীকরণের ক্ষেত্রে পাটজাত পণ্যের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে। খুব তাড়াতাড়ি আরো ১২টি পণ্য মোড়কীকরণের ক্ষেত্রে পাটজাত পণ্যের ব্যবহার বাধ্যতামূলক হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান সরকার গৃহীত নীতিমালা ও পরিকল্পনাকে কাজে লাগিয়ে পাট ও বস্ত্রখাতের রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণ, বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন, পরিবেশ রক্ষা এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করার ক্ষেত্রে এ মন্ত্রণালয় সফল হবে।

বিভাগ - : জাতীয়, তথ্য ও প্রযুক্তি

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন