July 9, 2020
  • ধাপে ধাপে খোলা হবে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: প্রধানমন্ত্রী
  • জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৯৮ শিক্ষার্থী
  • করোনায় আক্রান্ত ঢাবি অধ্যাপক, বাসা লকডাউন
  • এসএসসি-সমমানের ফল প্রকাশ
  • ১৫ জুন পর্যন্ত যে যে শর্ত মানতে হবে
  • পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাসার ৪ কর্মচারী করোনায় আক্রান্ত
  • ১৫ জুন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ
  • সরকারি টেস্টেও ডা. জাফরুল্লাহর করোনা পজিটিভ
  • রাজধানীতে সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী মিরপুরে
  • মার্কেট ও দোকানপাট খোলার সংখ্যা বাড়ছেই

কুপ্রস্তাবের প্রতিবাদ, চবি ছাত্রীকে শিক্ষকের হুমকি

cu logo.71
বার্তা৭১ ডটকমঃ কুপ্রস্তাবের প্রতিবাদ করায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমুদ্র ও মৎস্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের এক শিক্ষক প্রাণনাশের হুমকি দিয়ছেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই ইনস্টিটিউটেরই এক ছাত্রী। একই সঙ্গে ভুয়া কাবিন নামা বানিয়ে ওই ছাত্রীকে বিয়ে করেছেন বলেও ওই শিক্ষক প্রচার করেন বলে দাবি করে অভিযোগ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে ওই ছাত্রী।

এ বিষয়ে গত ১২ এপ্রিল ইনস্টিটিউটের সভাপতির কাছে লিখিত অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী ছাত্রী। বিষয়টি তদন্তে গত ২২ এপ্রিল একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

লিখিত অভিযোগে ছাত্রীটি বলেন, “আবাসন সংকট নিরসনের জন্য ইনস্টিটিউটের প্রভাষক ও প্রীতিলতা হলের আবাসিক শিক্ষকের (সাইদুল ইসলাম সরকারের) নিকট একটি আসনের জন্য অনুরোধ করলে গেলে ওই শিক্ষক আমাকে নানা প্রলোভন দেখান এবং অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের কথা বলেন। আমি ওনার কুপ্রস্তাবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানালে ইনস্টিটিউট থেকে বহিষ্কারের হুমকি দেন।”

ওই ছাত্রী বলেন, “মোবাইলে আমার বাবাকে হুমকি দিয়ে বলা হয়, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করলে মেয়েকে বিশ্ববিদ্যালয়ে টিকতে দেয়া হবে না”

পাশাপাশি ওই শিক্ষক তাকে জীবননাশের হুমকিও দেন বলেও অভিযোগে জানান ছাত্রীটি।

লিখিত অভিযোগের সবশেষে ওই শিক্ষার্থী ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন উল্লেখ করে অভিযুক্ত শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সরকার বলেন, “এখনই নিউজ না করার অনুরোধ করছি। ওই ছাত্রী বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অভিযোগ করেন কিন্তু তা সত্য নয়, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত হচ্ছে এবং আমি তদন্তের দিকেই তাকিয়ে আছি।”

তবে ভুক্তভোগী ছাত্রী দাবি করেন ওই শিক্ষকের সঙ্গে তার কোনো বিয়ে হয়নি। ছাত্রীটি বলেন, “ওই শিক্ষকের স্ত্রী আর কখনও তার স্বামী ঝামেলা করবে না-এই প্রতিশ্রুতি দিয়ে একটি হলুদ কাগজে আমার একটি স্বাক্ষর আদায় করে নেন। অন্য কিছুতেই আমাকে ফাঁসাতে না পেরে জোর করে আমার স্বাক্ষর নিয়ে বিয়ের কাবিননামা বানান ওই শিক্ষক।”

বিভাগ - : শিক্ষাঙ্গন

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন